টম্যাটো খান প্রতিদিন,জেনে নিন টম্যাটোর পুষ্টি গুন ও উপকারিতা

টম্যাটো খান প্রতিদিন,জেনে নিন টম্যাটোর পুষ্টি গুন ও উপকারিতা

টম্যাটো:

টম্যাটো হল একটি শীতকালীন সবজি । বাজারে টকটকে লালরঙের টম্যাটো সকলের নজর টানে । এটি যেমন পুষ্টিকর তেমন খেতেও সুস্বাদু বটে । দৈনিক আহারে টম্যাটো আপনাকে রাখতেই হবে । এর বিজ্ঞানসম্মত নাম হল — লাইকোপারসিক এসকুলেনটাম ।এটি খান প্রতিদিন এবং জেনে নিন টম্যাটোর পুষ্টি গুন ও উপকারিতা।

পুষ্টিগুণ ও পুষ্টি : 

বিজ্ঞানীদের কথায় প্রতি ১০০ গ্রাম খাদ্যোপযােগী অংশে আছে-

কার্বোহাইড্রেট —৩.৬ গ্রাম                                                                    লােহা —১.৮ মিগ্রা .

প্রােটিন —১.৯ গ্রাম                                                                                  ক্যালসিয়াম- -২০ মিগ্রী ,

ফ্যাট- -০.১ গ্রাম , আঁশ ০.৭ গ্রাম                                                            ফসফরাস- ~ ৩৬ মিগ্রা ,

ভিটামিন – এ ‘ — ৩২০ আই .                                                                  ইউ পটাশিয়াম —১১৪ মিগ্রা .

থায়ামিন —০৭ মিগ্রা .                                                                                ভিটামিন – সি ‘ — ৩১ মিগ্রা .

রিবোেফ্লাবিন -০১ মিগ্রা ,                                                                            নিকোটিনিক অ্যাসিড -০.৪ মিগ্রা ,

একটি বড় মাপের পাকা টম্যাটো থেকে আপনি ১২ ক্যালােরি শক্তি পেতে পারেন ।

উপকারিতা :
  • পুরােনাে কোষ্ঠকাঠিন্যে ভুগলে — সকালে ভাত খাওয়ার আগে এবং রাত্তিরে শুতে যাওয়ার আগে একটি করে খােসা – বিচি সমেত আস্ত টোম্যাটো খেলে কয়েক দিনের মধ্যেই সুফল পাওয়া যাবে । ঘুম থেকে উঠে খালি পেটে এবং শুতে যাওয়ার আগে ও দুপুরে ভাত খাওয়ার পর এক গ্লাস করে জল অবশ্যই খাবেন ।
  • একটি করে টাটকা পাকা টম্যাটো দুপুরে ভাত খাওয়ার আগে খােসা ও বীজ সমেত কাচা কামড়ে খেলে এবং রাত্তিরে শােওয়ার আগেও এইভাবে খেলে পুরােনাে কোষ্ঠকাঠিন্য কয়েক দিনের মধ্যে দূর হয়ে যাবে ।
  • যাদের ওজন কম তারা যদি খাওয়া – দাওয়ার সঙ্গে প্রতিদিন নিয়ম করে একটা পাকা টম্যাটো খান — ওজন নিশ্চয়ই বাড়বে।
  • ফ্যাকাসে রক্তহীন চেহারার ব্যক্তিদের প্রতিদিন নিয়মিত একটি পাকা টম্যাটো খাওয়া উচিত — এতে রঙে জৌলুস আসবে ও রক্তকণিকা বাড়বে ।
  • অর্জুন গাছের ছাল আর চিনি মিশিয়ে টম্যাটোর রসের অবলেহ ( জ্যামের মতাে ঘন থকথকে ) তৈরি করে নিয়মিত খেলে বুকের ব্যাথা বা হার্টের ব্যাথা এবং হার্টের অসুখে উপকার পাওয়া যায় ।
  • পাকা টম্যাটোর রসে মধু মিশিয়ে খেলে রক্তপিত্ত এবং রক্তবিকার ( রক্তের দোষ ) সেরে যায় ।
  • পাকা টম্যাটোর এক কাপ রস প্রতিদিন নিয়ম করে খেলে অস্ত্রের ভেতরে আটকে থাকা মল নিষ্কাশিত হয়ে যায় এবং এইভাবে পুরানাে কোষ্ঠকাঠিন্য সেরে যায় ।
  • টম্যাটোর দু এক চামচ রস বাচ্চাদের খাবার খাওয়ানাের আগে খাইয়ে দিলে দুধ তোলা বন্ধ হয়।
  • এক কাপ ভাল নারকেল তেল এবং আধকাপ টম্যাটোর রস একসঙ্গে মিশিয়ে শরীরে মালিশ করলে এবং তার একটু পরে হালকা গরম জলে স্নান করলে শরীরের চুলকুনি সারে ।
  • মাথার খুসকিতে আধকাপ ভাল নারকেল তেলে ১/৪ কাপ টম্যাটোর রস মিশিয়ে মালিশ করলে উপকার পাওয়া যায় ।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Change Language